কুমিল্লায় করোনা শনাক্তের হার ৪৫দশমিক ৬ শতাংশ ছাড়িয়েছে

নেকবর হোসেন: কুমিল্লায় করোনা সংক্রমণ লাগামহীনভাবে বাড়ছে। দিনদিন যেন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে জেলার করোনা পরিস্থিতি। এরই মধ্যে জেলায় করোনা শনাক্তের হার ৪৫ দশমিক শতাংশ ৬ ছাড়িয়ে গেছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯৩ জন। মারা গেছেন আরও সাতজন।

এদিকে, কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালের আঙিনায় স্থাপিত করোনা হাসপাতালেও প্রতিনিয়ত চাপ বাড়ছে রোগীদের। এরই মধ্যে সেখানে দেখা দিয়েছে শয্যা সংকট। বিশেষ করে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) শয্যা সংকট প্রকট আকার ধারণ করেছে।কুমেক হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ডা. রেজাউল করিম বলেন, করোনা হাসপাতালে প্রতিনিয়ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। হাসপাতালে করোনা রোগীদের ১৮টি আইসিইউ বেডসহ মোট বেড রয়েছে ১৩৬টি। এখন ভর্তি আছেন দেড় শতাধিক। রোগীদের চাপ সামলাতে আমাদের বেগ পেতে হচ্ছে।

মঙ্গলবার ৬ জুলাই) বিকেল থেকে বধুবার (৭জুলাই) বিকেল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৩৯৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। যা এই পর্যন্ত আক্রান্তের সর্বোচ্চ সংখ্যা।এই ২৪ ঘণ্টা সময়ের মধ্যে জেলায় আরও ০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। মৃত ব্যক্তিদের মধ্যে কুমিল্লা নগরীর তিনজন ও মরাদুনগর দুই জন,বুডিচং দুই জন, রয়েছেন। এনিয়ে জেলায় করোনায় মোট মারা গেছেন ৫০৭ জন।

বধুবার (৬ জুলাই) সন্ধ্যায় জেলা সিভিল সার্জন ডা. মীর মোবারক হোসাইন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৩৯৩ জনের মধ্যে ১৮০জনই কুমিল্লা নগরীর বাসিন্দা। বাকি ২১৩ জন জেলার বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। আক্রান্তের হার ছিলো ৪৫ দশমিক ৬ শতাংশ। এনিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৯৫৫ জনে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৭৫ জন। এনিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ১২ হাজার ১১২ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *