কুমিল্লার বুড়িচংয়ে নেশা পানে বাধা দেয়ায় ১পরিবারের ৪জনকে পিটিয়ে জখম

সৌরভ মাহমুূদ হারুন : কুমিল্লার বুড়িচংয়ে নেশা জাতীয় দ্রব্য পান করতে নিষেধ করায় প্রতিপক্ষের হামলায় একই পরিবারের ৪ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।ঘটনাটি ঘটেছে গত ২ মে সন্ধ্যা ৭ ঘটিকার সময় বুড়িচং উপজেলার কংশনগর গ্রামের মৃত. বাচ্চু মিয়ার ছেলে মোঃ জিলানী (৩৭) এর পূর্ব ভিটির বসত ঘরে।এ ব্যাপারে আহত জিলানী বাদী হয়ে গতকাল ৩ মে এজাহার নামীয় ৭ জন ও অজ্ঞাতনামা ২/৩ জনকে অভিযুক্ত করে বুড়িচং থানায় একটি এজাহার দায়ের করা হয়েছে।

এজাহারের ভিত্তিতে জানা যায়-বুড়িচং উপজেলার কংশনগর গ্রামের কামলা বাড়ির মৃত: আলী নেওয়াজের ছেলে মোঃ আ: মতিন (৫০) গংরা দীর্ঘদিন যাবত মানুষের সাথে জোর জুলুম ও অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকিয়া সমাজের নিরীহ ভদ্রলোকদের উপর অন্যায়ভাবে জোর জুলুম করিয়া আসিতেছে।ইদানিং প্রতিপক্ষদের মধ্যে বেশ কয়েকজন মোঃ জিলানী মিয়ার বাড়ীতে আসিয়া নেশা জাতীয় দ্রব্য পান করতে উদ্যত্ত হয়।তাতে জিলানী বাধা আপত্তি জানালে প্রতিবেশী প্রতিপক্ষরা ক্ষিপ্ত হয়ে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধমকি দিয়া আসিতেছে।

ঘটনার দিন গত ২ মে সন্ধ্যা ৭ ঘটিকার সময় প্রতিপক্ষগণ বেআইনী জনতা বদ্ধে আবদ্ধ হয়ে পূর্বপরিকল্পিতভাবে হাতে লাঠি,দা,রড ও লোহার অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে অনধিকার প্রবেশ করে অকথ্য ভাষায় গালাগালি শুরু করে।জিলানী এর প্রতিবাদ করিলে তারা আরো ক্ষুব্ধ হয়ে জিলানীর পূর্ব ভিটির বসত ঘরে প্রবেশ করে ব্যাপক ভাংচুর করে ২ লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন করে।প্রতিপক্ষরা লোহার রড দ্বারা জিলানী মাথা বরাবর আঘাত করতে চাইলে সে বাঁচার তাগিদে একটু কাত হয়ে পড়লে সে আঘাতটি তার ডান চোখের উপরিভাগে গিয়ে পড়ে এতে রক্তাক্ত জখম হয়।

এসময় জিলানী আত্মচিৎকারে জিলানী অপর দুই ভাই ইউসুফ ও মোঃ মনির হোসেন ও আ: মালেকের ছেলে জালাল উদ্দীন,জিলানীর স্ত্রী রাশেদা বেগম, মহাজ উদ্দীনের ছেলে ফরিদ মিয়াগংরা এগিয়ে এলে প্রতিপক্ষরা তাদেরকে ও লাঠি,লোহার রড ও দা দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে লিলা ফুলা জখম পূর্বক প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি ধমকি প্রদান করে এবং ড্রয়ারে থাকা নগদ ১ লাখ ২০ হাজার টাকা ও ৬৫ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নেয়াসহ মোট ৩ লাখ ৮৫ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করে।

পরবর্তীতে স্থানীয়রা তাদেরকে বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে।এ ঘটনায় এলাকায় বেশ থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে বুড়িচং থানায় মামলা নং-৫ তারিখ: ৩/৫/২১ খ্রি.।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *