মুন্সীগঞ্জে হাউজিং কোম্পানির গ্রুপিং ও আধিপত্যের টেটা যুদ্ধে ১০জন আহত

আবু সাঈদ দেওয়ান সৌরভ : মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে আবারো দু পক্ষের টেটা যুদ্ধ,ভাংচুর,অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।এ হামলায় আহত হয়েছে ১০ জন।আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৬ টায় সিরাজদিখান উপজেলার বালুচর ইউনিয়নের খাসকান্দি বেগম বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।পুলিশ ও স্থানীয়দের তথ্য সুত্রে জানা যায়,পূর্বের আধিপত্য বিস্তার এবং হাউজিং কোম্পানির গ্রুপিংকে কেন্দ্র করে নবধারা হাউজিং এর চেয়ারম্যান মোঃ শাহজাহান এবং সরকার সিটির চেয়ারম্যান খোরশেদ এর সাথে মাঝে মধ্যেই সংঘর্ষ হয়।

গত সোমবার রাতে শাহজাহান গ্রুপের আলি আকবরের গাড়িতে অতর্কিত হামলা চলায় খোরশেদ গ্রুপের লোকজন।এরই জেরে আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৬টায় সংঘর্ষ হয়।সংঘর্ষে শাহজাহান গ্রুপের লোকজন খোরশেদ সরকারেরের চাচাতো ভাই ইকবাল সরকারের মালিকানাধীন মিনি বাসে এবং নুরুলহক সরকারের বসত ঘরে আগুন দেয়।এছাড়াও বেগম বাজারে ৮-১০ টি দোকান ভাংচুর করে।সংঘর্ষ চলাকালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ৪ রাউন্ড গুলি ছুড়ে।

সিরাজদিখান থানার ওসি মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন জানান,পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন আনতে পুলিশকে ৪ রাউন্ড গুলি ছুড়তে হয়।বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে।অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।অভিযোগ পেলে পরবর্তীতে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওযা হবে।উল্লেখ্য,গুরুতর আহত মৃত ইশাবুদ্দিনের ছেলে মোঃ দৌলত সরকার (৪০) ও সালাউদ্দিন সরকার (৫২),নুরুল হকের ছেলে মোঃ মহিউদ্দীন (৩২) কে ঢাকা মিডফোর্ট হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে টেঁটাবিদ্ধ আহত হয়েছে খাসকান্দি গ্রামের মৃত দনু মিয়ার ছেলে আঃ রহিম (১৮),মৃত ইশাবুদ্দিনের ছেলে স্বাধীন সরকার (৩৮),মৃত রেজা সরকারের ছেলে মহাসিন সরকার (৪৫),মৃত সামসুদ্দিন সরকারের ছেলে আশাদ সরকার (৫৫)।আহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা ভর্তি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *