কুমিল্লায় ২টি হত্যাকান্ডে ৩কাউন্সিলর আসামী,সাত্তার রিমান্ডে,হাসান পলাতক,আলমগীর কারাগারে

নেকবর হোসেন : কুমিল্লার আলোচিত দুইটি হত্যা মামলায় কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের তিনজন কাউন্সিলর আসামী।তাদের মধ্যে যুবলীগ কর্মী জিল্লুর রহমান চৌধুরী ওরফে গোলাম জিলানী হত্যাকান্ডের ২নং আসামী কাউন্সিলর আবদুস সাত্তারকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।এ মামলার প্রধান আসামী কাউন্সিলর আবুল হাসান পলাতক রয়েছে।

এদিকে ব্যবসায়ী আক্তার হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামী কাউন্সিলর আলমগীর হোসেনের তিন দিনের রিমান্ড শেষ হয়েছে।সূত্রমতে,কাউন্সিলর আবদুস সাত্তারকে গত বৃহস্পতিবার তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত।রোববার তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনে পিবিআই।মঙ্গলবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও পিবিআই,কুমিল্লার পরিদর্শক বিপুল চন্দ্র দেবনাথ।

অপরদিকে ব্যবসায়ী আক্তার হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামী কাউন্সিলর আলমগীর হোসেনের তিন দিনের রিমান্ড শেষে রোববার আদালতের মাধ্যমে তাকে ফের কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।মঙ্গলবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কমল কৃষ্ণ ধর।তদন্ত কর্মকর্তা বিপুল চন্দ্র দেবনাথ বলেন,আমরা কাউন্সিলর আবদুস সাত্তারকে হত্যার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছি।

আশা করছি জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাবো।এ মামলার প্রধান আসামি কাউন্সিলর আবুল হাসানসহ অপর আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কমল কৃষ্ণ ধর বলেন,তিনদিনের জিজ্ঞাসাবাদে কাউন্সিলর আলমগীরের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যগুলো আমরা বিভিন্নভাবে যাচাই করছি।

উল্লেখ্য-গত বছরের ১১ নভেম্বর নগরীর চৌয়ারা এলাকায় যুবলীগ কর্মী জিল্লুর রহমান চৌধুরীকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী।এছাড়া গত বছরের ১০ জুলাই জুমার নামাজের পর মসজিদ থেকে বের করে এনে নগরীর কোটবাড়ি চাঙ্গিনি মোড়ে ব্যবসায়ী আক্তার হোসেনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *