মিয়ানমারে ফেসবুক,টুইটারের পর ইন্টারনেট সংযোগও বন্ধ করে দিলো সামরিক সরকার

কালজয়ী ডেস্ক : ফেসবুক,টুইটার ও ইনস্টাগ্রাম ব্লক করার পর এবার ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দিয়েছে মিয়ানমারের সামরিক সরকার।ব্রিটিশ গনমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা গেছে।গত সোমবার দেশটির সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা দখলের পর আজ এই পদক্ষেপ নেওয়া হলো।বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়,নেটব্লকস ইন্টারনেট অবজারভেটরি জানিয়েছে,প্রায় সম্পূর্ণভাবে ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।সংযোগ সাধারণ অবসন্থার চেয়ে ১৬ শতাংশ নিচে নেমে এসেছে।

বিবিসি বার্মিজ শাখাও ইন্টারনেট বন্ধের খবর নিশ্চিত করেছে।মিয়ানমারের টুইটার ও ইনস্টাগ্রামকে ব্লক করার নির্দেশ দেওয়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যে ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয়ছে।১ফেব্রুয়ারির অভ্যুত্থান বহু মানুষ ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচার দেখেছে।ফেসবুকে মিয়ানমারে তথ্য ও সংবাদের প্রাথমিক উৎস।কিন্তু তিন দিন পর ইন্টারনেট সেবাদাতাদের নির্দেশ দেওয়া হয় এই সামাজিক মাধ্যমটিকে ব্লক করবার।ওই নিষেধাজ্ঞার পর,হাজার হাজার ব্যবহারকারী টুইটার এবং ইনস্টাগ্রামে সরব হয়।

তারা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধাচারণ করে হ্যাশট্যাগ চালু করে।কিন্তু আজ টুইটার এবং ইনস্টাগ্রামও বন্ধ করে দেওয়া হয়।আর এবার ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়ার খবর এলো।এদিকে,ইয়াঙ্গুনে জনগন সমবেত হয়ে,সামরিক স্বৈরশাসক পরাজিত,পরাজিত,গণতন্ত্র বিজয়ী বিজয়ী স্লোগান দিতে থাকে।শহরের কেন্দ্রে পুলিশ ব্যারিকেড দিয়ে রাস্তাগুলো বন্ধ করে দিয়েছে।এ বিসয়ে সামরিক বাহিনীর কাছ থেকে এখনো কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে বিবিসি।সূত্র: বিবিসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *