ঝালকাঠিতে অর্থ আদায় ও আত্মসাতের অভিযোগে এসিল্যান্ড ও নাজির বদলী

মোঃ সাকিবুজ্জামান সবুর : ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক অর্থ আদায় ও আত্মসাতের অভিযোগে সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমিত সাহা ও তার অফিসের নাজির কাম ক্যাশিয়ার মোঃ মাইনুল ইসলামকে বদলী করা হয়েছে।

বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারি কমিশনার রিফাত আরা মৌরি এর ৩ ফেব্রুয়ারি স্বাক্ষরিত (৪ ফেব্রুয়ারি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত) আদেশ পত্রে (নম্বর০৫.১০.০০০০.০০১.১৪.০০২.১৯.৪৮) সুমিত সাহাকে (১৮০০২) কাঠালিয়া থেকে বরগুনা জেলার তালতলী উপজেলায় স্ব-পদে বদলীর আদেশ দেয়া হয়েছে।

অপরদিকে কাঠালিয়া উপজেলা ভূমি অফিসের নাজির মোঃ মাঈনুল ইসলামকে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সাধারণ শাখায় বদলী করা হয়েছে।গত ২৫ জানুয়ারী কাঠালিয়া উপজেলা সদরের মেসার্স ত্বহা ব্রিকস ফিল্ডে এসিল্যান্ড সুমিত সাহা,তার অফিসের নাজির মাঈনুলসহ অন্যান্য কর্মচারী, পুলিশ ও দমকল বাহিনীর সদস্য নিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালান।

এ সময় নানা অভিযোগ তুলে ইট ভাটার পার্টনার (মালিক) মোঃ শাহিন আকনের কাছে দশ লাখ টাকা দাবি করে এবং দুইজনকে আটক করা হয়।পরে ৪ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হলেও ভাটার মালিক পক্ষকে ২লাখ টাকার রশিদ প্রদান করা হয় (মামলার নম্বর ০৫/২০২১ইং)।অন্য দুই লাখ টাকা এসি ল্যান্ড ও নাজিরের বিরুদ্ধে আত্মসাৎ করার অভিযোগ ওঠে।ঘটনাটি ফেইসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *