লক্ষীপুরের রায়পুরে শিশু(১০) ধর্ষণের মামলায় গ্রেফতার আসামী বাবুল(৪০)

জিহাদ হোসাইন : লক্ষীপুরের রায়পুরে বাড়িতে একা পেয়ে এক শিশুকে (১০) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে বাবুল মিয়া (৪০) নামের এক জনের বিরুদ্ধে।এ ঘটনায় ভিকটিম শিশুটির বাবা জহির বাদী হয়ে অভিযুক্ত বাবুল মিয়াকে আসামী করে রায়পুর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।অভিযুক্ত বাবুল মিয়া পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের পূর্বলাচ গ্রামের মৃত মমিন মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় সুইপার। ঘটনার পর বাবুল মিয়া পালিয়ে যায়।পরে রায়পুর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামী বাবুল মিয়াকে আটক করে।

মামলার এজাহারে জানা যায়, শিশু সুরমার বাবা জহির একজন পেশায় সুইপার।এই সুবাধে আসামী বাবুল আসা-যাওয়া করত।মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে পৌরসভার পোস্ট অফিস সংলগ্ন ওয়াপদা কলোনিতে শিশুটিকে বসতঘরে রেখে তার বাবা- মা কাজের উদ্দ্যেশে লক্ষীপুর যান।এসুযোগে শিশুটিকে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে বাবুল মিয়া।এসময় শিশুটির আত্ন চিৎকারে প্রতিবেশী নারী এগিয়ে গেলে বাবুল পালিয়ে যায়।পরে বাবা-মা এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন,সুইপার বাবুল মিয়াকে আসামী করে ধর্ষণের মামলা করেছেন শিশুর বাবা।শিশুর মেডিকেল পরীক্ষার জন্য তাকে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।আসামি বাবুল মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *